সর্বশেষ আপডেট ১৯ ঘন্টা ১৮ মিনিট আগে
আপনি আছেন হোম / বাংলাদেশ / আদালত / বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যার শাস্তি শুরু, এক মামলায় ২৬ জনের ফাঁসি

বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যার শাস্তি শুরু, এক মামলায় ২৬ জনের ফাঁসি

প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারি ২০১৭ ২৩:৫৪ টা | আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ ০১:১৪ টা

সাবেক র‍্যাব কর্মকর্তা তারেক সাঈদ, আরিফ হোসেইন এবং মাসুদ রানা।

বিশেষ প্রতিনিধি, অনলাইন বাংলাঃ

বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যার জন্য আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য এবং তাদের সহযোগীদের শাস্তি দেয়ার ঐতিহাসিক বিচারিক অ্যাকশন শুরু হয়েছে। প্রথম মামলায় ২৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

দণ্ডিতমধ্যে লে. কর্নেল (বরখাস্ত) তারেক সাঈদসহ ১৬ জনই র‍্যাবের সাবেক সদস্য। আর ৩৬ জন দণ্ডিতের মধ্যে ২৫ জনই সন্ত্রাসবাদ দমনের জন্য গঠিত ব্যাটালিয়ানটির সদস্য।

সোমবার আলোচিত সাত খুন মামলায় নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সৈয়দ এনায়েত হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন।
 
মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, র‍্যাব-১১-এর চাকরিচ্যুত লেফটেন্যান্ট কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, মেজর আরিফ হোসেন, লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম এম রানা, হাবিলদার এমদাদুল হক, আরওজি-১ আরিফ হোসেন, ল্যান্স নায়েক হীরা মিয়া, ল্যান্স নায়েক বেলাল হোসেন, সিপাহি আবু তৈয়ব, কনস্টেবল মো. শিহাব উদ্দিন, এসআই পূর্ণেন্দ বালা, সৈনিক আবদুল আলীম, সৈনিক মহিউদ্দিন মুনশি, সৈনিক আসাদুজ্জামান নূর, সৈনিক আল আমিন, সৈনিক তাজুল ইসলাম ও সার্জেন্ট এনামুল কবীর।

আর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড পেয়েছেন র‍্যাব-১১-এর নয়জন। তারা হলেন, এএসআই আবুল কালাম আজাদ (অপহরণের দায়ে ১০ বছর),এএসআই বজলুর রহমান (সাক্ষ্য-প্রমাণ সরানোর দায়ে ৭ বছর), এএসআই কামাল হোসেন (অপহরণের দায়ে ১০ বছর),কর্পোরাল মোখলেছুর রহমান (অপহরণের দায়ে ১০ বছর), কর্পোরাল রুহুল আমিন (অপহরণের দায়ে ১০ বছর), হাবিলদার নাসির উদ্দিন (সাক্ষ্য-প্রমাণ সরানোর দায়ে ৭ বছর), কনস্টেবল বাবুল হাসান (অপহরণের দায়ে ১০ বছর), কনস্টেবল হাবিবুর রহমান (অপহরণের দায়ে ১০ বছর, সাক্ষ্য-প্রমাণ সরানোর দায়ে ৭ বছর)ও সৈনিক নুরুজ্জামান (অপহরণের দায়ে ১০ বছর)।

এ মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া বাকিরা হলেন, প্রধান আসামি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর নূর হোসেন, তার সহযোগী মিজানুর রহমান দীপু, রহম আলী, আলী মোহাম্মদ, আবুল বাশার, মোর্তুজা জামান (চার্চিল), সেলিম, সানাউল্লাহ ছানা, ম্যানেজার শাহজাহান ও ম্যানেজার জামাল উদ্দিন।

মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিদের মধ্যে সেলিম, সানাউল্লাহ ও শাহজাহান পলাতক রয়েছেন।

বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে পলাতকরা হলেন, কর্পোরাল মোখলেছুর রহমান, সৈনিক আবদুল আলীম, সৈনিক মহিউদ্দিন মুনশি, সৈনিক আল আমিন, সৈনিক তাজুল ইসলাম, সার্জেন্ট এনামুল কবীর, এএসআই কামাল হোসেন, কনস্টেবল হাবিবুর রহমান হাবিব ও নূর হোসেনের সহযোগী ম্যানেজার জামাল উদ্দিন।
 
২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিঙ্ক রোড থেকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ওই সময়ের প্যানেল মেয়র ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম ও নারায়ণগঞ্জ আদালতের সিনিয়র আইনজীবী চন্দন কুমার সরকারসহ সাতজনকে দুটি প্রাইভেটকার থেকে অপহরণ করে র‍্যাব। অপহরণের তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ছয়জনের এবং এর একদিন পর আরেকজনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
 
ওই ঘটনায় নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি একটি এবং সিনিয়র আইনজীবী চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পাল আরেকটি মামলা করেন। প্রায় এক বছর তদন্ত শেষে ৩৫ জনকে আসামি করে ২০১৫ সালের ৮ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ।

পাঠক মন্তব্য () টি

চিকিৎসার খরচ পরিশোধে ব্যর্থ অসচ্ছল ব্যক্তির লাশ জিম্মি না করার নির্দেশ

চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলে অসচ্ছল ব্যক্তির লাশ চিকিৎসার খরচ পরিশোধে ব্যর্থতার কারণে…

৭ই মার্চ কেন জাতীয় দিবস নয়, ভাষণ-মঞ্চ পুনর্নির্মাণের নির্দেশ কেন নয়

৭ই মার্চ তর্জনি উঁচিয়ে স্বাধীনতায় উদ্বুদ্ধকরণে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের ভাস্কর্য ওই মঞ্চে কেন…

রাষ্ট্রদ্রোহ: তারেক রহমানসহ ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

তেজগাঁও থানার রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ তিন সাংবাদিকের…

কপিরাইট ২০১৪ onlineBangla.com.bd
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: গুলবুদ্দিন গালীব ইহসান
অনলাইন বাংলা, ৬৯/জি গ্রিন রোড, পান্থপথ (নীচ তলা), ঢাকা-১২০৫।
ফোন: ৯৬৪১১৯৫, মোবাইল: ০১৯১৩৭৮৯৮৯৯
ইমেইল: contact.onlinebangla@gmail.com
Developed By: Uranus BD