সর্বশেষ আপডেট ২৯ দিন ২ ঘন্টা আগে
আপনি আছেন হোম / বাংলাদেশ / জাতীয় / মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ চায় গার্মেন্টস শ্রমিকরা

মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ চায় গার্মেন্টস শ্রমিকরা

প্রকাশিত: ০৪ জানুয়ারি ২০১৭ ০৯:০৭ টা

নিজস্ব প্রতিবেদক, অনলাইন বাংলাঃ

গার্মেন্টস শ্রমিকদের সাংবিধানিক ও নাগরিক অধিকার রক্ষায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন শ্রমিকরা।

বেতন বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলনরত আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলের গার্মেন্টস শ্রমিকদের উপর নির্যাতন-চাকরিচ্যুতি-গ্রেপ্তার বন্ধের দাবিতে মঙ্গলবার কমিশনে গিয়ে শ্রমিক নেতাদের একটি প্রতিনিধি দল এ আহ্বান জানান।

রাজধানীর মগবাজারে কমিশন কার্যালয়ে এর চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক গার্মেন্ট শ্রমিকদের ১২ টি সংগঠনের জোট 'গার্মেন্টস শ্রমিক আন্দোলন' এর একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বৈঠকে প্রতিনিধি দলে সমন্বিত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম পথিক, গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি মোশরেফা মিশু, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির তাসলিমা আক্তার এবং বাংলাদেশ শ্রমিক মুক্তি আন্দোলনের সভাপতি শবনম হাফিজ উপস্থিত ছিলেন।

শ্রমিক নেতারা বৈঠকে মানবাধিকার কমিশনকে একটি চিঠিতে বেতন বাড়ানোর যৌক্তিক দাবির কারণে শ্রমিকদের নাগরিক এবং মানবাধিকার হরণ বন্ধ করতে সাহায্য চান।

চিঠিতে বলা হয়েছে, বর্তমান আর্থ-সামাজিক কঠোর বাস্তবতার কারণে বেতন বাড়ানোর যৌক্তিক দাবিতে বিক্ষোভ করায় এক হাজার ছয় শতাধিক শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।
 
এদিকে চাকরিচ্যুত হওয়া শ্রমিকরা তাদের ঘরবাড়িতেও থাকতে পারছেন না। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন অজ্ঞাতনামা শ্রমিকদের বিরুদ্ধে মামলা করায় গ্রেপ্তার থেকে বাঁচতে শ্রমিকদের পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে।  

স্থানীয় পুলিশ ও সন্ত্রাসীরা প্রতিদিন শ্রমিকদের বাসায় তল্লাসি অভিযান চালানোর কারণে আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে শান্তিপূর্ণ-গণতান্ত্রিক পরিবেশের পরিবর্তে ভীতি বিরাজ করছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ অবস্থায় শ্রমিক সংগঠনগুলো মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যানকে শ্রমিকদের সাংবিধানিক অধিকার রক্ষায় উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

শ্রমিক নেত্রী মোশরেফা মিশু জানান, মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যান বলেছেন আশুলিয়ার শ্রমিকদের সঙ্গে যথাযথ আচরণ করা হচ্ছে না। তিনি শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় উদ্যোগ নেবেন।

মিশু বলেন, চেয়ারম্যান আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি সরকার এবং গার্মেন্টস মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সঙ্গে কথা বলবেন এবং একটি ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের আয়োজন করে শ্রমিকদের বেতন বাড়ানোর ইস্যুর সমাধানের চেষ্টা করবেন।

গত ১১ ডিসেম্বর আশুলিয়ায় গার্মেন্টস শ্রমিকরা তাদের ন্যূনতম মজুরি ৫৩০০০ টাকা থেকে ১৬ হাজার টাকায় উন্নীত করার দাবি জানান।

শ্রমিকদের এ দাবিকে অবৈধ আখ্যা দিয়ে গত ২০ ও ২১ ডিসেম্বর ৮৫টি কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে গার্মেন্টস মালিকরা। পরে ২৬ ডিসেম্বর কারখানাগুলো খুলে দেওয়া হয়। ওই সময় মালিকপক্ষ অন্তত এক হাজার ৬০০ শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করার কথা ঘোষণা করে।
 
এদিকে শ্রমিকদের উস্কানি দেয়ার অভিযোগে গার্মেন্টস মালিক এবং পুলিশ দেড় হাজারেরও বেশি শ্রমিকের বিরুদ্ধে নয়টি মামলা দায়ের করেছে। এসব মামলায় অন্তত ৩০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাঠক মন্তব্য () টি

প্রধানমন্ত্রীর শিশু ভ্যানচালক সংসারেরও চালক

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ভ্যানের চালক ইমাম শেখ ১৭ বছরের শিশু।

স্বামী ভাত না খাওয়ায় স্ত্রীর আত্মহত্যা!

আশুলিয়া স্বামী রাগ করে ভাত না খাওয়ায় এক গার্মেন্টস শ্রমিকের আত্মহত্যা।

জলকামান রুখে দাঁড়ালেন মিজানুর

মিজানুর পানি নিক্ষেপে বাঁধা দেওয়ার জন্য জলকামানে ওঠার চেষ্টা করলে তাকে কয়েকজন…

কপিরাইট ২০১৪ onlineBangla.com.bd
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: গুলবুদ্দিন গালীব ইহসান
অনলাইন বাংলা, ৬৯/জি গ্রিন রোড, পান্থপথ (নীচ তলা), ঢাকা-১২০৫।
ফোন: ৯৬৪১১৯৫, মোবাইল: ০১৯১৩৭৮৯৮৯৯
ইমেইল: contact.onlinebangla@gmail.com
Developed By: Uranus BD